লোগাং এর কান্না

অশ্রুধার বন্ধ হয় না,ঝরে যায় ঝরে পড়ে
যেন থামতে চাই না আর।
কান্নার রোল থেমে যেতে চাই,
কিন্তু পারে না থামতে।
অস্থির হয়ে ওঠে আমার দেহ।
যখন উত্তেজিত হয় আমার হৃদয়
উঁকি মারে আমার ওপর বিরানব্বই (৯২) এর কালবৈশাখীর কথা,
হঠাৎ কেন জানি শুরু হয়, কালবৈশাখীর উত্তাপ
শুরু হয় তার লীলাখেলা, তান্ডবে অকালে ঝরে যায় অসংখ্য দুঃসাহসীর প্রাণ।
একে একে ঝরে পড়ে বৃদ্ধ, শিশু,তরুণ -তরুণীর, কিশোর-কিশোরীর প্রাণ।
যেন থামে না মৃত্যুর মিছিল।
ভূতের প্রধান কেন্দ্র হয় আমার বুক।
একে একে চলে যায় সবাই,কেউ উত্তর দেয় না
শুধু প্রশ্ন রেখে যায় ।
হারিয়ে যাবে বলে,
যেন থেমে যায় তাদের কত দুঃসাহসিক স্বপ্ন।
হাহাকার সৃষ্টি হয় ধরণীর বুকে।
কত স্বপ্ন ছিল তাদের,ধরণীকে সাজাতে।
অকালে ঝরে পড়ে তাদের লালিত সুন্দর স্বপ্ন।
আমিও হারায় আমার চেনাজানা আত্মীয় -স্বজনদের।
যারা আমার দেহ পার হয়ে অজানা গন্তব্যে যায়
বিকাল হলে আবার আমার সাথে দেখা করে।
তারাও নির্যাতনের শিকার হয়,তাদেরও প্রাণ দিতে হয় এসবের মাঝে।
হারিয়ে ফেলি
আমার চেনা, আমার জানা প্রিয় মুখদের।
রুপনন্দের মতো সহজ সরল, বাত্ত্যের মতো দুঃসাহসী
আর সাথে নাম না জানা অনেককে।
থমকে যায় আমার মুখ।
সব নিঃশেষ হয় আমার বুক।
খালি হয়ে যায় হৃদপিন্ডের ক্রিয়া।
আমি আজও কাঁদি তাদের স্মৃতি মনে ওঠে।
তাদের সাথে ছিল কত খুনসুটি , ছিল কত মেলবন্ধন।
কতো সুখের ছিল সেইদিনগুলি,
মাঝপথে হারিয়ে ফেলি, সুখের দরজা।
হারিয়ে ফেলি আমার নিশ্বাস
আজ তারাও হারিয়ে যায় আমার বুকে।
খুজে দেখি বুকে,খুজে পাই না কোথাও।
আমার মুখে ভাষা শেষ হয়ে যায়।
উধাও হয়ে যায় আমার কণ্ঠস্বর।
জিম্মি হয় আমার মুখ।
তাই করতে পারিনা অমোক স্মৃতিচারণা।
ইতিহাসের পাতাও নড়ে যায়,আমার বুকে বিরানব্বই এর ছাপ এলে।
আমি আতঙ্কিত, আমি শঙ্কিত, উত্তেজিতও হই।
প্রতিবাদ করি বারবার, কিন্তু সাড়া পাইনি কখনও।
লংমার্চ থেকে লংমার্চ, যেন মনে পড়ে
সেইদিনে লংমার্চ কে কিন্তু মনে রেখেছি এখনও।
খাগড়াছড়ি থেকে আমার আত্মহারা বুক পর্যন্ত।
হাজার হাজার উত্তেজিত তরুণ পা ফেলে আমার বুকের ওপর।
একটু স্বস্তি পাই তাদের দেখে।
কিন্তু সেই স্বস্তি নিশ্বাস এখনও ফেলতে পারিনি বুকে।
যখন পারবো ইতিহাসও হয়তোবা বদলে যাবে
এখনও সেইদিনে অপেক্ষায় আছি আমি।
যখন সবার বুকে লোগাং এর রক্ত স্মৃতি হবে।
অপেক্ষা আছিও যখন লোকে মুখে আমার কথা শুনবো।
পথে ঘাটে বলবে আমার কথা
যখন পথশিশু থেকে শাসকশ্রেণী রাজপূত্ররাও আমায় স্মরণ করবে।
তখন আমি অমোক ভাষণ করবো।
এখনও লোগাং এর অপেক্ষা আছি,
থাকবো চিরদিন।
অনুরোধ একটাই মনে রাখবে সবাই,
যেন সকলে মাঝে আমি স্থান পাই।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s